Tuesday, November 28, 2023

ভারতকে বিশ্বের প্রথমসারির উৎপাদন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে

ভারতকে বিশ্বের প্রথমসারির উৎপাদন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে, ভারত হবে বড় উৎপাদন কেন্দ্র! ‘স্বল্প দামে মিলবে উন্নত গুণমানের সামরিক সামগ্রী’, ঘোষনা মোদীর।

ভারতকে বিশ্বের প্রথমসারির উৎপাদন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে, ভারত হবে বড় উৎপাদন কেন্দ্র! ‘স্বল্প দামে মিলবে উন্নত গুণমানের সামরিক সামগ্রী’, ঘোষনা মোদীর।

অতি দ্রুত ভারতকে বিশ্বের প্রথমসারির উৎপাদন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে। কেন্দ্রীয় বাজেট ২০২১-র ওপর আয়োজিত এক ওয়েবমিনারে এই দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী। সেই লক্ষ্য পূরণে প্রতিরক্ষা সামগ্রী উৎপাদন খাতে বেড়েছে ব্যয় বরাদ্দ বেড়েছে। এদিন জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দাবি, ‘সরকারের লক্ষ্য ভারতকে উৎপাদন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা। যেখানে স্বল্প খরচে, উন্নত গুণমানের প্রতিরক্ষা সামগ্রী পাওয়া যাবে।’ এভাবেই বিশ্বে প্রথমসারির প্রতিরক্ষা সামগ্রী রফতানিকারী দেশ হিসেবে উঠে আসবে দেশ। এদিন এমন দাবিও করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

তাঁর দাবি, ‘দেশের উৎপাদন ক্ষমতা অব্যবহৃত হয়ে পড়ে আছে। সেই ক্ষমতাকে ব্যবহার করে সামরিক সামগ্রী নির্মাণে বেসরকারি সংস্থার অবদান দেশকে আত্মনির্ভর করে তুলবে।’

তিনি বলেন, ‘স্বাধীনোত্তর যুগে দেশে একাধিক অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরি ছিল। প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় সেখান থেকেই অস্ত্র রফতানি করা হতো। কিন্তু স্বাধীনতার পরবর্তী যুগে যতটা প্রয়োজন, ততটা উদ্দেশ্য নিয়ে সেই উৎপাদন ক্ষমতার সক্ষমতা বাড়ানো হয়নি।’

প্রধানমন্ত্রী জানান, বন্ধু রাষ্ট্রের ওপর থেকে সামরিক নির্ভরতা কমাচ্ছে ভারত। পাশাপাশি বৈপ্লবিক পদ্ধতিতে স্থানীয় সামরিক পণ্য উৎপাদনে জোর দেওয়া হচ্ছে। তবে শুধু দেশের জন্য নয় রফতানি স্বার্থেও উৎপাদন করা হচ্ছে সামরিক সামগ্রি। এই খাতে কর্মসংস্থান বাড়াতে উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্রের সরকার।

সরকারি লাল ফিতের ফাঁস খুলতে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। সেই পদক্ষেপের জেরে ব্যাপক সংস্কার ঘটবে প্রতিরক্ষা খাতে। এদিন জানান প্রধানমন্ত্রী।#

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest article